আপনার আশে পাশের বিভিন্ন ঘটনা-দূর্ঘটনা, প্রকৃতি পরিবেশ ও সংস্কৃতি অনুষ্ঠান এর ছবি তুলে পাঠিয়ে দিন- [email protected]

বালিয়াকান্দিতে ধর্ষন মামলায় ৭ মাস কারাভোগের পর নির্দোষ প্রমানিত!


বালিয়াকান্দি (রাজবাড়ী) ঃ ইউপি নির্বাচনে প্রার্থী হওয়া ও ভাগনীর মামলার স্বাক্ষী হওয়ার অপরাধে রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে ধর্ষন মামলায় ৭ মাস কারাভোগের পর নির্দোষ প্রমানিত হয়েছে দিনমজুর ইসলাম সরদার ওরফে ফেদো। এখন বিচার চেয়ে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন ওই দিনমজুর।
বালিয়াকান্দি উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের মৃত কিয়াম উদ্দিন সরদারের ছেলে ইসলাম সরদার ওরফে ফেদো জানান, তার ভায়রার মেয়েকে ফুসলিয়ে ও জোড়পুর্বক নির্যাতন করায় গোবিন্দপুর গ্রামের মোশারফ মোল্যার ছেলে মনিরুল মোল্যার বিরুদ্ধে ২০১৬ সালের ১৯ আগষ্ট ও ৭ সেপ্টেম্বর পৃথক দু,টি মামলা দায়ের করে। ওই মামলায় তাকে স্বাক্ষী করা হয়। স্বাক্ষী থাকার কারণে ও বিগত ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার কারণে স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ কুদ্দুস শেখের অনুরাগের সুযোগে মনিরুল মোল্যাকে মামলা থেকে রক্ষা করতে মনিরুল মোল্যার শালিকা কালুখালী উপজেলার শিকজান বড়ই চারা গ্রামের মেয়ে ও বথুনদিয়া গ্রামের রবিউল ইসলামের স্ত্রী কে বিদেশ পাঠানোর মিথ্যা অভিযোগ তুলে বাড়ীতে শ্যালক-দুলাভাই মিলে ২০১৬ সালের ২০ সেপ্টেম্বর পালাক্রমে ধর্ষন করেছে বলে অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করে। সাবেক ইউপি সদস্য আঃ কুদ্দুস শেখ ওই মেয়েকে নিয়ে থানায় হাজির হয় এবং তাকে মেডিকেল পরীক্ষা করায়। ২০১৬ সালের ১৪ অক্টোবর পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরন করেন। প্রায় ৭ মাস কারাভোগের পর জামিনে মুক্তি পান। তদন্তকারী কর্মকর্তা এস,আই ফজলুল হক মামলাটি মিথ্যা হওয়ায় ২০১৭ সালের ২ ফেব্রুয়ারী তার ও তার শ্যালক হাবিল মোল্যাকে বাদ দিয়ে চুড়ান্ত রিপোর্ট দাখিল করাসহ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ১৭ ধারায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য আদালতে আবেদন করেন। ২০১৭ সালের ১৮ অক্টোবর তাকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেন। মিথ্যা মামলা দায়েরকারীর বিরুদ্ধে আদালত ব্যবস্থা গ্রহন না করায় মামলার সকল নকল তুলে ২০১৮ সালের আগষ্ট মাসে তিনি বাদী হয়ে মিথ্যা মামলা দায়েরকারী হেলেনা খাতুন, মোশারফ মোল্যা, মনিরুল মোল্যাকে আসামী করে বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতে মামলাটি দায়ের করেছেন।
ইসলাম সরদার ফেদো আরো জানান,যাতে কেউ মিথ্যা মামলা দায়ের করে পার না পায় ও  সমাজে এক শ্রেণীর মামলাবাজ দালাল রয়েছে। এদের চিহিৃত করতে স্থানীয় প্রশাসনকে অনুরোধ জানান।

No comments: