আপনার আশে পাশের বিভিন্ন ঘটনা-দূর্ঘটনা, প্রকৃতি পরিবেশ ও সংস্কৃতি অনুষ্ঠান এর ছবি তুলে পাঠিয়ে দিন- [email protected]

সাতক্ষীরার আশাশুনিতে প্রতিবন্ধী মেয়েকে বিষ খাইয়ে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যা





মাধব দত্ত, সাতক্ষীরা ঃ প্রতিবন্ধী মেয়েকে বিষ খাইয়ে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিয়ে মা একই বিষ পানে আত্মহত্যা করেছেন। সোমবার সকালে সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার গোয়ালডাঙা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ মা ও মেয়ের লাশ উদ্ধার করেছে।
আত্মহননকারি মায়ের নাম শান্তি রানি মন্ডল (৩৬) ও প্রতিবন্ধি মেয়ের নাম তমালিকা মণ্ডল (৮)। শান্তি রানি মন্ডল গোয়ালডাঙা গ্রামের দিনমুজুর উত্তম মন্ডলের স্ত্রী।
স্থানীয়রা জানান, জন্ম থেকে প্রতিবন্ধি তমালিকাকে নিয়ে উত্তম মন্ডল ও তার স্ত্রী শান্তি রানী মন্ডলের মধ্যে প্রতিনিয়ত বিরোধ চলে আসছিল।
 উত্তম মন্ডলের বড় মেয়ে সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী তন্দ্রা মন্ডল জানান, তার বোন তমালিকা মন্ডল জন্মগত শারিরীক প্রতিবন্ধী। বিভিন্ন সময়ে সে বাড়ির জিনিসপত্র ভাংচুর করতো। এ নিয়ে বাবা ও মায়ের মধ্যে অশান্তি চরমে উঠে। তন্দ্রা জানান, তার মা প্রতিবন্ধিী মেয়ের আচরন সহ্য করতে না পেরে সোমবার সকালে খাবারের সাথে তামলিকাকে বিষ খাওয়ান। তমালিকা যখন বিষক্রিয়ায় যখন ছটফট করছিল তখন তার মা একই বিষ খেয়ে আত্মহননের পথ বেছে নেন। অল্প সময় পরে মা ও বোনের দেহ নিথর হয়ে পড়ে। স্থানীয় ডাক্তারকে ডেকে নিয়ে এলে তারা দুইজনই মারা গেছে বলে নিশ্চিত করেন তিনি। বেদনাদায়ক এ ঘটনার সময় বাবা উত্তম মন্ডল বাড়িতে ছিলেন না। ভোরে তিনি মাছের ঘেরে কাজ করতে যান বলে জানান তন্দ্রা।
জানতে চাইলে আশাশুনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বিপ্লব কুমার নাথ জানান, এ ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

No comments: