ঘন কুয়াশায় দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে দু’দফা ফেরি চলাচল বন্ধ


গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি
ঘন কুয়াশার কারণে দেশের ব্যস্ততম দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে দুই দফায় দীর্ঘ সাড়ে ৫ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর ফেরি চলাচল শুরু হয়েছে। এতেকরে দৌলতদিয়া ঘাটে নদী পাড়ের অপেক্ষায় মহাসড়কে আটকা পড়ে শত শত যানবাহন।
বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া অফিস সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দিনগত রাত সাড়ে ১১টা থেকে তীব্র কুয়াশায় নৌরুটের মার্কিং (বিকন বাতি) অস্পষ্ট হয়ে যায়। এতে দুর্ঘটনা এড়াতে ফেরিসহ সব নৌযান চলাচল বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ। আড়াই ঘন্টা বন্ধ থাকার পর রাত ২টার দিকে কুয়াশার ঘনত্ব কমে এলে ফের ফেরি চলাচল শুরু হয়। এরপর ভোর বুধবার ভোর ৬টা থেকে নদী এলাকায় তীব্র কুয়াশায় আবারো ফেরিসহ সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এসময় দিক হারিয়ে মাঝ নদীতে নোঙ্গর করে থাকতে বাধ্য হয় ৫টি ফেরি। টানা ৩ ঘণ্টা ফেরিসহ সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ থাকার পর কুয়াশার ঘনত্ব কিছুটা কমে এলে বুধবার বেলা ৯ টার দিকে পুনরায় রুটে ফেরিসহ নৌযান চলাচল শুরু হয়।
এসময় নদী পাড়ের অপেক্ষায় দৌলতদিয়া ঘাটে সিরিয়ালে আটকে পড়ে শত শত বিভিন্ন যানাবাহন। আটকে পড়া যানবাহনের সারি দৌলতদিয়া ঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে মহাসড়কের অন্তত ৭ কিলোমিটার দুরে গোয়ালন্দ বাসস্ট্যান্ড পর্যন্ত বিস্তৃত হয়। আটকে থাকা যানবাহনের যাত্রী ও পরিববহন সংশ্লিষ্টরা এসময় চরম দূর্ভোগের শিকার হন।
বিআইডব্লিউটিসি’র দৌলতদিয়া অফিসের সহকারী ম্যানেজার আবু আব্দুল্লাহ রনি বিষয়টি নিশ্চিত করে সমকালকে জানান, আটকে পড়া যানবাহন গুলো দ্রুত নদী পারাপারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তারা।

No comments: