আপনার আশে পাশের বিভিন্ন ঘটনা-দূর্ঘটনা, প্রকৃতি পরিবেশ ও সংস্কৃতি অনুষ্ঠান এর ছবি তুলে পাঠিয়ে দিন- [email protected]

রাজবাড়ীতে ব্যক্তিগত উদ্যোগে গড়ে উঠেছে “আর্ট স্পেস ও গ্যালারী”



রাজবাড়ী প্রতিনিধি ঃ রাজবাড়ীতে ব্যক্তিগত উদ্যোগে গড়ে উঠেছে একক মালিকানাধীন দেশের সবচেয়ে বড় আর্ট স্পেস ও গ্যালারী। যার নাম করন করা হয়েছে ‘বুনন আর্ট স্পেস’। প্রতিদিন রাজবাড়ী ছাড়াও আশেপাশের জেলা থেকে এখানে আসছেন আকিয়ে শিল্পি ও দর্শনার্থীরা। “বুনন আর্ট স্পেসে রয়েছে একটি আর্ট গ্যালারী। যেখানে স্থান পেয়ে মুক্তিযুদ্ধকালীন বিভিন্ন ভাস্কর্য ও পাচ শতাধীক চিত্রকর্ম। যা দেখতে প্রতিদিন ভীর করছে শত শত মানুষ।
জানাগেছে, রাজবাড়ী জেলা শহর থেকে একটু দুরে শান্ত নিরিবিলি সদর উপজেলার রামকান্তপুর ইউনিয়নের স্বর্ণশিমুলতলা গ্রাম। এখানেই জন্ম একুশে পদক প্রাপ্ত খ্যাতনামা চিত্র শিল্পী মনসুর উল করিমের। পড়াশোনা ও দীর্ঘ চল্লিশ বছর কর্মজীবন শেষে নীজ বাড়িতে ২০১৫ সালে ৩ একর জমির উপর গড়ে তুলেন “ বুনন আর্ট স্পেস”। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই এখানে চিত্র শিল্পিরা আসেন ছবি আকতে। শুধু চিত্র শিল্পি নয় মাঝে মাঝে এখানে বসে কবিতা আবৃত্তি, গুনী শিল্পিদের নিয়ে আলোচনা সভা, ও সাংস্কৃতিক আড্ডা।
রাজবাড়ী শহরের বাসিন্দা নেহাল উদ্দিন জানান, এ জেলায় অনেক গুনী মানুষের জন্ম তার মধ্যে মনসুর উল করিম অন্যতম। তার তৈরি বুনন আর্ট স্পেসে নতুন প্রজন্ম ভালো একটি পরিবেশে ছবি আকতে পারছে। এখানে শিল্প সাহিত্যের চর্চা হচ্ছে। রাজবাড়ীবাসির জন্য একটি অনন্য পাওয়া।
রাজবাড়ী শহরের অপর এক বাসিন্দা ফারুখ উদ্দিন জানান, রাজবাড়ীর ছেলে মেয়েরা চারুকলায় দীর্ঘ্যদিন যাবৎ পুরুষ্কার পেয়ে আসছে। রাজবাড়ীতে একটি চারুকলা ইনস্টিটিউট বা আর্ট কলেজ প্রতিষ্ঠিত হলে এখান থেকেই তৈরি হবে খ্যাতনামা শিল্পি।
“ বুনন আর্ট স্পেস” এর প্রতিষ্ঠাতা চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনষ্টিটিউটের সাবেক প্রফেসর ও একুশে পদক প্রাপ্ত খ্যাতনামা চিত্র শিল্পী মনসুর উল করিম জানান, ছবি আকা একটি ভাষা। যা লিখে বুঝাতে হয়না। শিল্পির শিল্পকর্ম দেখে বোঝা যায় তিনি কি বোঝাতে চেয়েছেন।
তিনি আরো জানান, একটি ভালো ছবি তৈরির জন্য একটি ভালো পরিবেশ প্রয়োজন। ১৯৪৮ সালের পূর্বে আমাদের দেশে আর্ট প্রচলন ছিলো না। বিট্রিশরা আশার পর বিভিন্ন রাজার বাড়ীতে ছবি একে প্রদর্শন করতো। আমরা সেই ছবির সাথে পরিচিত। আমার বয়স, সময়ের সাথে সাথে আমার হৃদয়ে দানা বাধে আমার জন্য ঢাকা শহর বা চট্টগগ্রাম না আমার জন্য রাজবাড়ী যেখানে আমরা শৈশব যে এলাকার কাদামাটি আমার শরীরে লেপটে আছে আমি সেখানে এমন কিছু করতে চাই যা দেখে সারা দেশবাসি মুগ্ধ হবে।

No comments: